পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ৩০ অক্টোবর ২০১৪

এনজিও সংক্রান্ত বিধানাবলী

পার্বত্য চট্রগ্রাম এলাকায় কর্মরত বেসরকারী স্বেচছাসেবী  সংস্থাসমুহ পরিচালনার জন্য বিশেষ বিধানাবলী:

 

          প্রধানমন্ত্রীর  কার্যালয় থেকে ১২/৪/২০১২ খ্রিঃ তারিখ জারিকৃত বাংলাদেশে কর্মরত বিদেশী ও বৈদেশিক সাহায্যপুষ্ঠ বাংলাদেশী বেসরকারী সে¦চছাসেবী (এনজিও) ক্ষেত্রে অনুসরণীয় কার্যপ্রণালী শীর্ষক পরিপত্রে তিনটি পার্বত্য জেলার জন্য কিছু বিশেষ বিধানাবলী আছে। পরিপত্রের ৫(জ) অনুচেছদে পার্বত্য চট্রগ্রামে এনজিওসমুহের কার্যক্রম তত্ত্বাবধ্যন ও মূল্যায়ন করার জন্য জেলা পর্যায়ে নিম্মরূপ কমিটি গঠন করা হয়েছে :

          (১)      চেয়ারম্যান, সংশ্লিষ্ট পার্বত্য জেলা পরিষদ                              -      আহবায়ক

          (২)     সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসক                                                    -     সদস্য-সচিব

          (৩)     পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদের এক একজন প্রতিনিধি                -     সদস্য

          (৪)      সংশ্লিষ্ট জেলার সামাজসেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক                  -     সদস্য

          (৫)     সংশ্লিষ্ট  সরকারি অধিদপ্তরের জেলা পর্যায়ের কর্মকর্তা                    -     সদস্য

          (৬)     জেলার কর্মরত সকল এনজিও ’র একজন করে প্রতিনিধি                 -    সদস্য

          (৭)      এডাব (অউঅই) - এর একজন প্রতিনিধি                                -     সদস্য

          (৮)     সংশ্লিষ্ট  এলাকার সার্কেল চীফ অথবা তার প্রতিনিধি                     -     সদস্য

          উল্লেখ্য সমতল জেলাসমুহের জন্য জেলা প্রশাসকের নেতৃত্বে অনুরুপ কমিটি রয়েছে।

          পরিপত্রের অনুচেছদ ১৪ এ পার্বত্য জেলাসমূহে এনজিওদের কার্যক্রম পরিচালনা সম্পর্কিত নিম্নরুপ বিধানাবলী সংযুক্ত করা হয়েছে ঃ 

ক)      সরকার কর্তৃক প্রণীতব্য নীতিমালা অনুযায়ী পার্বত্য জেলাসমূহে উন্নয়ন ও সেবামূলক কার্যক্রম পরিচালনার জন্য এনজিওসমূকে সরকারের কোনো মন্ত্রণালয়/বিভাগ/অধিদপ্তর হতে নিবন্ধনপ্রাপ্ত হতে হবে।

খ)       এনজিওসমূহ পার্বত্য জেলাসমূহে সকল প্রকার ইতিবাচক, উন্নয়নমূলক ও সেবামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করতে পারবে।

গ)       উন্নয়নমূলক বা সেবামূলক কার্যক্রম পরিচালনার পূর্বে পার্বত্য জেলাসমূহের সংশ্লিষ্ট এলাকায় বিরাজমান সমস্যা ও এলাকার অধিবাসীদের প্রকৃত প্রয়োজন চিহ্নিত করতে হবে। অতঃ পর সংশ্লিষ্ট এলাকায় বিরাজমান সমস্যা ও এলাকার অধিবাসীদের প্রকৃত প্রয়োজনের ভিত্তিতে এনজিওসমূহকে কার্যক্রম পরিচালনার অনুমতি প্রদান করা হবে।

ঘ)       এনজিও কার্যক্রম পরিচালনার ক্ষেত্রে ¯হানীয় এনজিওগুলো অগ্রাধিকার পাবে। পার্বত্য এলাকার বাইরের এনজিওগুলো পার্বত্য জেলাসমুহে কাজ করার ক্ষেত্রে স্থানীয় এনজিওর মাধ্যমে কার্যক্রম পরিচালনা করবে। স্থানীয় এনজিও সংশ্লিষ্ট এলাকায় পাওয়া না গেলে পার্বত্য এলাকার বাইরের এনজিওগুলো পার্বত্য চট্রগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অনাপত্তি সাপেক্ষে কার্যক্রম পরিচলনা করতে পারবে।

ঙ)       ধর্ম, গোষ্ঠী, বর্ণ, গোত্র নির্বিশেষে সমগ্র পার্বত্য অঞ্চলবাসীদের মধ্যে স¤প্রীতি বজায় রেখে এনজিওসমুহ উন্নয়ন ও সেবামূলক কর্মকান্ড পরিচালনা করবে।

চ)       পার্বত্য এলাকায় কর্মরত এবং কাজ করতে ইচছুক এনজিওসমুহ নিুেবর্ণিত নিষেধাজ্ঞাসমূহ প্রতিপালন করে চলবে:

(১)      উপজাতীয় ও অ-উপজাতীয় বাসিন্দাদের মধ্যে সম্প্রীতির বিঘ্ন ঘটায় এমন কোনো কার্যক্রম গ্রহণ করা যাবে না,

(২)     ধর্মীয় অনুভূতি বিরোধী কর্মকান্ড পরিচালনা এবং ধর্মান্ততকরণ করা যাবে না,

(৩)     সাম্প্রদায়িক কাজে উস্কানী প্রদান করে এমন কোনো কাজ করা যাবে না,

(৪)      জাতীয় বা আঞ্চলিক নিরাপত্তা বিঘ্নিত করে এমন কাজ করা যাবে না,

(৫)     প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে এমন কোনো কর্মকান্ড করা যাবে না ঐ এলাকার অধিবাসীদের বিচ্ছিন্নতাবাদ বা গোষ্ঠিগত আন্দোলনে উৎসাহিত করে,

(৬)     প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে এমন কোনো রাজনৈতিক কর্মকান্ডে সম্পৃক্ত হতে পারবেনা এবং

(৭)      দেশী/বিদেশী বিচ্ছিন্নতাবাদী আন্দোলনরত কোন ব্যক্তি/সংগঠন বা রাজনৈতিক দলের সাথে সংশ্লিষ্ট থেকে কোনো উস্কানীমুলক কর্মকান্ড পরিচালনা করা যাবে না।

ছ)       এনজিও-দের কার্যক্রম, অনুমোদিত প্রকল্প প্রস্তাব, কর্মপরিকল্পনা ও কর্ম এলাকার মধ্যে সীমাবদ্ধ রাখতে হবে। কোনো এনজিও অনুমোদতি প্রকল্প প্রস্তাব, কর্মপরিকল্পনা বা কর্মএলাকার কাজ করলে অথবা ১৪ (চ) অনুচেছদে বর্ণিত নিষেধাজ্ঞা লংঘন করলে পার্বত্য চট্রগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদের সুপারিশক্রমে তাদের বিরুদ্ধে নিবন্ধন বাতিলসহ অন্যান্য আইনানুগ ব্যব¯হা গ্রহণ করা যাবে।

          এছাড়াও কার্যপ্রণালীর অনুচেছদ ৫(ঙ) ,৫(ছ) , ৫(ঝ), ৭(খ)(ঝ)(ট)(ঠ)(ড) ১২ (গ)(ঘ) পার্বত্য চট্রগ্রামে এনজিও এর কার্যক্রম সম্পর্কিত বিধানাবলী বিধৃত হয়েছে।

পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদ আইন, ১৯৯৮-এর ২২(ছ) উপানুচ্ছেদ মোতাবেক পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদ সংশ্লিষ্ট পার্বত্য জেলাসমূহে কর্মরত এনজিও কার্যাবলীর সার্বিক সমন্বয় তদারকী করবে।

 

পার্বত্য চট্রগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সিদ্ধান্তের প্রেক্ষিতে পার্বত্য চট্রগ্রাম এলাকায় কর্মরত এনজিওসমুহের কার্যক্রম মনিটরিং করার  জন্য নিম্নরুপ মনিটরিং সেল গঠন করা হয়েছে:

১।       উপসচিব (সমন্বয়-২)                                          সভাপতি

          পার্বত্য চট্রগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়

২।       নির্বাহী কর্মকর্তা                                                 সদস্য

          পার্বত্য চট্রগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদ

৩।      নির্বাহী কর্মকর্তা                                                 সদস্য

          পার্বত্য জেলা পরিষদ (সংশ্লিষ্ট)

৪।       সিনিয়র সহকারী সচিব (প্রশাসন)                               সদস্য

          পার্বত্য চট্রগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়

৫।       সিনিয়র সহকারী সচিব (উন্নয়ন)                                সদস্য

          পার্বত্য চট্রগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়।

 

 


Share with :
Facebook Facebook